শিরোনাম

প্রকাশঃ ২০২৩-০৯-০৮ ১৫:৪৪:৪৯,   আপডেটঃ ২০২৪-০৪-১৮ ১৭:২৫:৩২


চাচার সঙ্গে প্রবাসে ঝগড়া, দেশে ফিরে ভাইকে খুন করে আল-আমিন

চাচার সঙ্গে প্রবাসে ঝগড়া, দেশে ফিরে ভাইকে খুন করে আল-আমিন

নিজস্ব প্রতিবেদক

কুমিল্লার বরুড়ায় নিখোঁজের দুদিন পর এক মাদ্রারাসা ছাত্রের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। বুধবার (৬ সেপ্টেম্বর) উপজেলার ভবানীপুর ইউনিয়নের এগারো গ্রামের একটি পরিত্যক্ত বাড়ি থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় পুলিশ ঘটনায় অভিযুক্ত নিহতের চাচাতো ভাই আল আমিনকে সুনামগঞ্জ জেলার দোয়ারা বাজার থানার বাশতলা এলাকা থেকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারের পরে জানা গেছে, চাচার সঙ্গে প্রবাসে ঝগড়া হওয়ায় দেশে ফিরে চাচাতো ভাইকে খুন করা হয়েছে। এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন বরুড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ফিরোজ হোসেন। 

গ্রেফতার ওই যুবক কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার ভবানীপুর ইউনিয়নের এগারো গ্রামের মো. রিপনের ছেলে আল আমিন (২৫)। সে সম্পর্কে হত্যাকাণ্ডের শিকার কুমিল্লার বরুড়া পৌরসভার পাঠানপাড়া এলাকার মাসুদ রানার ছেলে ইব্রাহিম খলিলের (৭) চাচাতো ভাই। 

আল আমিনকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, নিহত ইব্রাহিম খলিলের বাবা সংযুক্ত আরব আমিরাত প্রবাসী মাসুদ রানা তার আপন ভাতিজা আল আমিনকে তার কাছে নিয়ে চাকুরী দেয়। কিন্তু সংযুক্ত আরব আমিরাতে পাওয়া কাজ আল আমিনের পছন্দ না হওয়ায় কাজ করতে অপারগতা প্রকাশ করে সে। তখন চাচা মাসুদের সাথে বাকবিতণ্ডা হয় আল আমিনের। পরে সে দেশে চলে আসে। দেশে আসার পর আল আমিন তার চাচার ছোট ছেলে মাদ্রাসা ছাত্র ইব্রাহিম খলিলকে কৌশলে নিয়ে গিয়ে হত্যা করে লাশ মাটি চাপা দিয়ে রাখে। 

বরুড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ফিরোজ হোসেন জানিয়েছে, নিহত শিশুর মা জেসমিন আক্তার(৩৬) আল আমিনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন। ঘটনায় জড়িত আল আমিনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। মামলাটির তদন্ত অব্যাহত আছে। যদি আরও কেউ যুক্ত থাকে তাদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনা হবে। 




www.a2sys.co

আরো পড়ুন